৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

বঙ্গোপসাগরে পণ্যবোঝাই দু’টি জাহাজডুবি, এক নাবিক নিখোঁজ

আপডেট: জানুয়ারি ২৪, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বঙ্গোপসাগরে নোয়াখালীর ভাসানচর এলাকায় দু’টি পণ্যবোঝাই লাইটার জাহাজডুবির ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে ‘খাজা বাবা ফরিদপুরী’ নামে একটি জাহাজ পুরোপুরি ডুবে যায় এবং ‘এন ইসলাম’ নামে আরেকটি জাহাজও প্রায় ডুবে যাওয়ার পথে। দু’টি জাহাজের নাবিকদের মধ্যে একজন নিখোঁজের খবর পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে একঘণ্টার ব্যবধানে কাছাকাছি জায়গায় দু’টি জাহাজ দুর্ঘটনার সম্মুখীন হয়।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিসি) উপ-পরিচালক মোহাম্মদ সেলিম বলেন, খাজা বাবা ফরিদপুরী জাহাজটি ১ হাজার ৭০০ মেট্রিক টন গম নিয়ে চট্টগ্রাম বন্দর থেকে নারায়ণগঞ্জে যাচ্ছিল। ভাসানচর বয়ার এক নটিক্যাল মাইল পূর্বে গিয়ে জাহাজটি ডুবে যায়। জাহাজে ১৩ জন নাবিকের মধ্যে ১২ জন উদ্ধার হলেও একজন এখনও নিখোঁজ আছেন।

তিনি বলেন, আমাদের নির্দেশনা আছে কমপক্ষে তিন ঘণ্টার জোয়ারের সময় হাতে নিয়ে যেন ভাসানচর অতিক্রম করা হয়। জাহাজটি দেড় ঘণ্টা সময় নিয়ে ভাসানচর অতিক্রম শুরু করে। স্বাভাবিকভাবেই জোয়ারের পানি কমতে শুরু করলে ভাটার টানে জাহাজটি ডুবে যায়।’
অন্যদিকে, ভাসানচরের কাছাকাছি এলাকায় আরেকটি জাহাজের সঙ্গে সংঘর্ষে ‘এন ইসলাম’র তলা ফেটে গিয়ে সেটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে বলে জানা যায়।

বিআইডব্লিউটিসি’র উপ-পরিচালক মোহাম্মদ সেলিম বলেন, তলা ফেটে জাহাজটি যখন ডুবে যাচ্ছিল, ক্যাপ্টেন সেটিকে চরের কাছাকাছি নিয়ে গেলেও জাহাজটির বড় অংশ ডুবে গেছে। তবে এই জাহাজটির সব নাবিক নিরাপদে আছেন।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
আমাদের চ্যানেল ৩৬৫ ফেসবুক লাইক পেজ