১৮ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, সোমবার

শিরোনাম
প্রধানমন্ত্রীর হাতে‘বীরগাঁথা তুলেদিতেচানকুড়িগ্রামের জেলাপ্রশাসক একাধিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি সুযোগ পেয়েও টাকার অভাবে ভর্তি অনিশ্চিত অনিকের বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সম্পাদকমন্ডলীর সভা অনুষ্ঠিত বগুড়ায় মূল্যবান ধাতব মুদ্রাসহ ৯ প্রতারক গ্রেফতার আয় কর বিভাগকে মানুষকে আস্থার মধ্যে এনে কর প্রদানে উদ্বুদ্ধ করতেহবে- মান্নান এমপি গোপালপুরে সূতি মডেল সরকারি প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়া মাহফিল খরায় জিম্বাবুয়েতেএখন পর্যন্ত সর্ববৃহৎ ন্যাশনাল পার্কে ২০০ হাতির মৃত্যু মানহানি মামলায় পিরোজপুরে চার প্রাথমিক শিক্ষকের কারাদন্ড মঠবাড়িয়ার কৃতিসন্তান শহীদ নূর হোসেনকে নিয়ে জাপা নেতার অবমাননাকর বক্তব্যের প্রতিবাদ ও বিচার দাবিতে মানববন্ধন

তাড়াইলে ৫০পিছ ইয়াবাসহ ব্যবসায়ী গ্রেফতার

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

মুকুট দাস, তাড়াইল (কিশোরগঞ্জ ): কিশোরগঞ্জের তাড়াইলে ৫০পিছ ইয়াবাসহ এক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে ।

জানা যায়,১০ ফেব্রুয়ারি রবিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাড়াইল থানা পুলিশ উপজেলার রাউতি ইউনিয়নের কোনাভাওয়াল গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে পালন মিয়া (২৩) কে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে।

প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসা করলে ইয়াবার কথা অস্বীকার করায় পালন মিয়াকে তাড়াইল থানা পুলিশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে ডা.জিনাত রায়হানা আলট্রাসনোগ্রাম করে পেটের ভিতরে ইয়াবার অস্তিত্ব দেখতে পান।

রাতভর বিভিন্ন ঔষধ প্রয়োগের পর ১১ ফেব্রুআরি সোমবার দুপুর আড়াইটায় বাথরুম চাপলে ইয়াবার একটি কৌটা বেরিয়ে আসে।তাতে ৫০পিছ ইয়াবা পাওয়া যায়।

পালন মিয়া জানান,৫০পিছ করে ১৪টি কৌটা অর্থাৎ মোট ৭’শ পিছ ইয়াবা কলার সাথে খেয়ে পেটের মধ্যে করে কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানার হিংলানা বাজার থেকে নিয়ে এসেছে ।

১০ ফেব্রুয়ারী রোববার সকালে কিশোরগঞ্জ জেলার কটিয়াদী উপজেলা সদরে ১৩ টি ইয়াবার কৌটা জৈনক আনোয়ারের নিকট হস্তান্তর করে এবং ১ টি কৌটাসহ নিজ এলাকার মলু খাঁর ছেলে মিলন উরফে ইয়াবা মিলন ও কালা ভূঁইয়ার ছেলে রাজীবের নিকট হস্তান্তরের প্রক্রিয়া করছিল।

পালন মিয়া আরো জানান সে মিলন ও রাজীবের হয়ে এই কাজ করেছে।টাকার বিনিময়ে সে এই কাজ করেছে এবং এবারেই তার প্রথম চালান এটি ।

উক্ত অভিযানে নেতৃত্ব দেন তাড়াইল থানার এসআই আনিসুর আশেকীন।সাথে ছিলেন, এএসআই নেছার উদ্দিন,এএসআই হাসেম, এএসআই ফজলুল হক এবং এএসআই হেমন্ত ।

এ ব্যাপারে তাড়াইল থানার ওসি চৌধুরী মিজানুজ্জামান জানান,উপজেলার রাউতি ইউনিয়নের কোনাভাওয়াল গ্রামের মিলন ও রাজীবের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে থানায় একাধিক মামলা আছে।তাদেরকেও আইনের আওতায় আনার চেষ্টা চলছে ।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মাদকদ্রব্য আইনে পালন মিয়ার বিরুদ্ধে মামলা রুজু করার প্রস্তুতি চলছে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন