৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

বিষাক্ত মদ পানে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৫০

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

ভারতের আসামে বিষাক্ত মদ পানে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৫০ জনে দাঁড়িয়েছে। মৃতদের মধ্যে স্থানীয় মদ বিক্রেতা সঞ্জু ওরাং এবং তার মা দৌপদীসহ অন্তত নয় নারী শ্রমিকও রয়েছেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরও অন্তত ১৭০ জন। হাসপাতাল সূত্রের বরাত দিয়ে রবিবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স।

২১ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আসামের রাজধানী গুয়াহাটি থেকে প্রায় ৩০০ কিলোমিটার দূরে গোলাঘাট জেলার সালমারা চা-বাগানে এ ঘটনা ঘটে। এদিন সাপ্তাহিক মজুরি পাওয়ার পর চা শ্রমিকরা ওই বিষাক্ত চোলাই মদ পান করেন। এরপর ধীরে ধীরে অসুস্থ হয়ে পড়েন তারা।

চোলাই মদ পানে শ্রমিকরা অসুস্থ হয়ে পড়লে তাদের নিকটবর্তী বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমান্ত বিশ্ব শর্মা রয়টার্সকে জানান, আহতদের চিকিৎসায় সংলগ্ন জেলাগুলো থেকে চিকিৎসকদের নিয়ে আসা হচ্ছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় অন্যান্য মেডিক্যাল কলেজের চিকিৎসকদেরও এ কাজে নিয়োজিত করা হচ্ছে।

চিকিৎসকরা বলছেন, মদের বিষক্রিয়ার ফলে এই ভয়াবহ প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। বিষক্রিয়ার কারণ নিশ্চিত হতে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ।

আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়ালের নির্দেশে এরইমধ্যে এ ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে তিন দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, এ ঘটনার পর ওই এলাকা থেকে অবৈধ মদ প্রস্ততকারক ফ্যাক্টরির কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। আরও বেশ কয়েকজনকে আটকের জন্য অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
আমাদের চ্যানেল ৩৬৫ ফেসবুক লাইক পেজ