১৮ই জুলাই, ২০১৯ ইং, বৃহস্পতিবার

পিলার পাচারকারী চক্রের সদস্য মহিলা কমিশনারের পিতা দেলো মিয়া ও তার সহযোগীরা ফের সক্রীয়

আপডেট: মে ১২, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিনিধি: আন্তর্জাতিক সিমানা পিলার পাচার চক্রের সদস্য চানু মিয়া ও নেছারাবাদ এলাকার দেলো মিয়া সহ তাদের অর্থ যোগান কারী সীমা কমিশনারের ক্ষমতা ব্যাবহার করে ঝালকাঠি তে আবস্থান নিয়েছে।

চানু মেম্বর ও তার সহযোগ মহিলা কমিশনারের পিতা দেলো মিয়া দীর্ঘদিন আত্বগোপনে থেকে ফের সক্রীয় হয়ে উঠছে বলে একটি সুত্র নিশ্চিত করছে।তারা দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পুরনো সীমানা নির্ধারক বা ম্যাগনেটিক পিলার সংগ্রহ করে চোরাচালানের মাধ্যমে বিদেশে পাচার করে আসছিল।দেলো মিয়া ঝালকাঠি সদর উপজেলার নেছারাবাদ এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা।

উল্লেখ্য, ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ রাত ১২ টায় ঘটনাস্থলে গিয়ে একটি কবর সাদৃশ্য খোরার সময় ঝালকাঠির বাসন্ডা ইউনিয়নের দাড়খী পানি ব্যবস্থাপনা কেন্দের দক্ষিন পাশের আলি হোসেনের বাড়ি থেকে নেছারাবাদ এলাকার মহিলা কমিশনার সিমা’র পিতা দেলো মিয়া, দাড়খীর চানু মেম্বরসহ ১১ জনকে আটক করে পুলিশ।এসময় তাদের নিকট থেকে কোদাল, খোন্তা ও দড়ি উদ্ধার করা পুলিশ।

এব্যাপারে সাংবাদিকরা উক্ত নিউজ প্রকাশ করলে ওই মহিলা কমিশনার সীমা ফোনে সাংবাদিক দের হুমকি দেয়। এতে স্থানীয় সাংবাদিকরা ঝালকাঠি থানায় সাধারণ ডায়েরি করে।পরবর্তীতে কিছু সাংবাদিক দের মধ্যস্থতায় পরবর্তীতে উক্ত সাধারণ ডায়েরি তুলে নেয়ার হুমকি ও ভয়বিতি প্রদান করে।

র্দীঘদিন পুলিশ হেফাজতে থাকার পরে জামিনে মুক্ত হয়ে আর্ন্তজাতিক সীমানা পিলার পাচার চক্রের চানু মেম্বার ও দেলো মিয়াসহ তার সহযোগীরা ফের সক্রীয় হয়ে উঠছে বিভিন্ন সুত্রে জানাগেছে। পুলিশে চোখ ফাকি দিয়ে সীমানা পিলার পাচারের মতো রাস্ট্র বিরোধী তার এমন কর্মকান্ডে স্থানীয় এক কাউন্সিলরে যোগাযোগ রয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় একাদিক বিস্বাস্থ মহল।

একটি আর্ন্তজাতিক প্রতারক চক্রের মাধ্যমে ব্রিটিশ আমলে স্থাপিত সীমানা পিলার, পুরাতন পিতলের মৃল্যবান ক্লিপ, ম্যাগনেটসহ রাস্ট্রীয় সম্পদ কোটি কোটি টাকার আশায় স্থানীয় দেশীয় দালালদের মাধ্যমে তুলে নিচ্ছে একটি আর্ন্তজাতিক প্রতারক চক্র।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন