১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, মঙ্গলবার

শীঘ্রই চমক দেখাচ্ছেন বরিশালের সন্তান জাহাঙ্গীর কবির নানক!

আপডেট: আগস্ট ২৪, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক। ৪ দশকেরও বেশি সময় ধরে বাংলাদেশের রাজনৈতিক মাঠে নিজেকে নানা পরীক্ষায় উর্ত্তীণ হয়েছেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও শেখ হাসিনার প্রতি আনুগত্যের পরীক্ষায়ও সফলভাবে পাস করা বর্ষীয়ান এই রাজনীতিবিদের সামনে দলটির পক্ষ থেকে নতুন এক পরীক্ষার সুযোগ দেয়া হতে পারে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

আওয়ামী লীগের হাইকান্ড সূত্রে জানা গেছে, জাহাঙ্গীর কবির নানককে একাদশ জাতীয় সংসদে এমপি পদে মনোনয়ন দেয়া হয়নি। এমনকি তাকে টেকনোকেট কোঠায়ও মন্ত্রী করা হয়নি। শুধুমাত্র আওয়ামী লীগ সভানেত্রী তাকে ছাত্রলীগের প্রধান দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা হিসাবে কাজ করার জন্য বলেছেন। সেই দায়িত্ব সুচারুভাবে পালন করতে না পারলেও যথেষ্ট চেষ্টা করে যাচ্ছেন ছাত্রলীগের হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে এনে বিতর্কহীন আদর্শিক ছাত্রলীগ উপহার দেয়ার।

আওয়ামী লীগের সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো নিশ্চিত করেছেন, আগামী অক্টোবর মাসেই দলের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। কিন্তু প্রথম তারিখেই আওয়ামী লীগের সম্মেলন করে এবার নতুন এক ইতিহাসও সৃষ্টি করতে পারে ক্ষমতাসীন দলটি। আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা দলের সর্বোচ্চ ফোরামে এমনই ইঙ্গিত দিয়েছেন। সেক্ষেত্রে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদের অন্যতম দাবিদার পরিক্ষীত নেতা জাহাঙ্গীর কবির নানক। কিন্তু বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের যদি সুস্থ থাকেন তাহলে সেখানে তার যাওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ বলেই মনে করেন অনেকে।

সেক্ষেত্রে জাহাঙ্গীর কবির নানকের জন্য আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে তাকে নতুন এক পরীক্ষায় নামিয়ে দেয়ার পরিকল্পনাও রয়েছে। সেই পরিকল্পনার অংশ হিসাবে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় প্রার্থী করা হতে পারে তাকে। কেননা, রাজনীতিবিদদের হাতেই রাজনীতি রাখার পক্ষে মত দিয়েছেন আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারকরা। সেক্ষেত্রে মোহাম্মদপুরের (ঢাকা-১৩) আসনের সাবেক এমপি, যুবলীগের সাবেক চেয়ারম্যান ও ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানককে এক ধরণের অগ্নিপরীক্ষায় অবতীর্ণ হতে হবে। কেননা, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের বর্তমান মেয়র আতিকুল ইসলামের পক্ষে জনমত তেমন একটা নেই। সর্বশেষ ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবিলায় ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের দুই মেয়রই চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন।

এছাড়া সাধারণ ভোটাররা একজন রাজনীতিবিদকেই মেয়র হিসাবে দেখতে চান, এমনকি কমিশন বাণিজ্যের অভিযুক্ত দক্ষিণের মেয়র সাঈদ খোকনেরও পরিবর্তন দেখতে চান ঢাকাবাসীরা।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন