৮ই এপ্রিল, ২০২০ ইং, বুধবার

‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি কি ভারতের নাগরিক?

আপডেট: জানুয়ারি ১৮, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি কি ভারতের নাগরিক? যদি সত্যিই নাগরিক হয়ে থাকেন তাহলে কি তা প্রমাণ করতে পারবেন? ভারতের নাগরিকত্ব প্রমাণের সেসব দালিলিক প্রমাণপত্র কি তার কাছে আছে?’ মোদি সরকারের নতুন নাগরিকত্ব আইন নিয়ে দেশটিতে চলমান বিক্ষোভ-আন্দোলনের মধ্যেই চাঞ্চল্যকর এ তথ্য-বিস্ফোরণ ঘটালেন কেরালার এক নাগরিক।

১৩ জানুয়ারি রাজ্যের তথ্য অধিকার দফতরে পিটিশন করে প্রধানমন্ত্রী মোদির নাগরিকত্ব সম্পর্কে নিশ্চিত তথ্য চেয়েছেন তিনি। শুক্রবার ভারতের প্রভাবশালী দৈনিক ন্যাশনাল হেরাল্ডের এক প্রতিবেদনে এ খবর প্রকাশ করা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ২৩ ডিসেম্বর ভারতের কেরালা রাজ্যের থ্রিসুর জেলার চালাকুদ্য এলাকার বাসিন্দা যোশি কল্লুভিত্তিল তার পৌরসভার পাবলিক ইনফরমেশন অফিসারের কাছে তথ্য অধিকার (আরটিআই) আইনের পরিপ্রেক্ষিতে একটি অনুসন্ধানের আবেদন দাখিল করেন। সেখানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ভারতের নাগরিকত্ব আছে কি না এবং থাকলে সেটি তিনি প্রমাণ করতে পারবেন কি না, তা জানতে চান যোশি। চালাকুদ্য পৌরসভার এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, যোশির ওই আবেদন নয়াদিল্লির সেন্ট্রাল পাবলিক ইনফরমেশন অফিসারের কাছে পাঠানো হয়েছে।

‘আম আদমি পার্টি’র কর্মী যোশি জানান, এ পিটিশন তিনি নিজের প্রচারের জন্য দেননি। জনগণের পক্ষ থেকে তিনি এ কাজ করেছেন। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) নিয়ে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ব্যাখ্যায় বলা হয়, ১৯৮৭ সালের ১ জুলাইয়ের আগে যারা ভারতে জন্মেছেন তারা সবাই ভারতের নাগরিক।

এ ছাড়া ১৯৮৭ সালের ১ জুলাই থেকে ২০০৪ সালের ৩ ডিসেম্বরের মধ্যে যারা জন্ম নিয়েছেন এবং যাদের বাবা-মায়ের মধ্যে কোনো একজন ভারতের নাগরিক তিনিও ভারতীয়।

পাশাপাশি ২০০৪ সালের ৩ ডিসেম্বরের পর যারা জন্মেছেন এবং যাদের বাবা-মা দু’জনই ভারতের নাগরিক কিংবা একজন ভারতীয় নাগরিক এবং অন্যজন একই সময়ে ‘অনুপ্রবেশকারী’ নন, তারাও ভারতের নাগরিক হিসেবেই গণ্য হবেন।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন