২৮শে মে, ২০২০ ইং, বৃহস্পতিবার

ঘূর্ণিঝড় আম্পান : শিকলে বেঁধে রাখা হলো ট্রেনের চাকা

আপডেট: মে ২০, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

অনলাইন ডেস্কভারতের পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলে প্রবল গতিতে ১২ ঘণ্টা ধরে তাণ্ডব চালাবে ঘূর্ণিঝড় আম্পান। পশ্চিমবঙ্গের সাত জেলায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে রাজ্যের আবহাওয়া দপ্তর। এমন পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনগুলোর চাকা শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা হচ্ছে ভারতের বিভিন্ন রেল স্টেশনে।

আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পূর্ব ও দক্ষিণ পূর্ব রেলের হাওড়া, শিয়ালদহ ডিভিশনের বহু স্টেশনেই দেখা গিয়েছে এমন ছবি। লকডাউনের জেরে গত ২৫ মার্চ থেকেই পুরোপুরি স্তব্ধ ভারতের স্বাভাবিক রেল পরিসেবা। কিন্তু বিভিন্ন স্টেশনে দাঁড়িয়ে রয়েছে একাধিক ট্রেন। স্টেশনে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনগুলি যাতে কোনো বিপদ না ঘটায় সে জন্য আগেভাগেই সতর্ক রেল কর্তৃপক্ষ। তাই দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনগুলোর চাকা শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে।

ট্রেনের চাকা শিকল বাঁধার ব্যাখ্যা দিয়ে রেল কর্তৃপক্ষ জানায়, দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনগুলো ঝড়ের দাপটে কোনো কারণে নিজের অবস্থান থেকে সরে গেলে ভয়ংকর দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তাই আগাম সতর্কতা হিসেবে ট্রেনের চাকাগুলি বেঁধে রাখা হয়েছে। তবে শুধু ঝড়ের ক্ষেত্রেই নয়, ট্রেন কোনো কারণে দীর্ঘক্ষণ দাঁড় করিয়ে রাখা হলে তার চাকা এ ভাবেই বেঁধে রাখা হয় বলেই জানিয়েছেন রেলের কর্মকর্তারা।

লকডাউনের মধ্যে পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরাতে ‘শ্রমিক স্পেশাল’ চালানোর উদ্যোগ নিয়েছিল রেল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু ঘূর্ণিঝড়ের আগাম সতর্কবার্তা পেয়ে ওই ট্রেনগুলো আপাতত বাতিল করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দু’টি ট্রেন চলাচল বাতিল করা হয়। আজ বুধবার হাওড়া থেকে নয়া-দিল্লিগামী আপ এসই স্পেশাল এক্সপ্রেস বাতিল করা হয়েছে। স্থগিত করা হয়েছে আগামীকাল বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লী থেকে হাওড়া ডাউন এসই স্পেশাল এক্সপ্রেসের যাত্রাও।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন