২রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

শালিসের নামে স্বামী-স্ত্রীকে নির্যাতন করল মেম্বার!

আপডেট: জানুয়ারি ২৫, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

জেলার শরণখোলায় এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে শালিস করার নামে স্বামী-স্ত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার (২৫ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার খোন্তাকাটা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ আমড়াগাছিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নির্যাতিতরা চিকিৎসা নিতে চাইলে তাদেরকে ঘন্টাব্যাপি আটকে রাখেন ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে তার সহযোগীরা। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় একই দিন দুপুরে তারা শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই গ্রামের দিনমজুর আলতাফ হোসেন হাওলাদার (৪৫) ও তার স্ত্রী তিন সন্তানের জননী শাহিনুর বেগম (৩৫) অভিযোগ করে বলেন, পারিবারিক বিরোধকে কেন্দ্র করে শুক্রবার সকালে ইউপি সদস্য ডালিম শিকদার তাদের বাড়িতে আসেন। এক পর্যায় শালিস বৈঠকে তার স্বামী মেম্বরের অনুমতি ছাড়া কথা বললে সে ক্ষিপ্ত হয়ে তার স্বামীকে মারপিট শুরু করে।

এ সময় তার স্ত্রী শাহিনুর বেগম বাধা দিলে মেম্বর ও তার সহযোগী আ. রাজ্জাক (৩০) ও ইদ্রিস হাওলাদার (৩৫) সহ কয়েকজন একজোট হয়ে উভয়কে নিষ্ঠুর নির্যাতন শুরু করেন। এ পর্যায় তাদের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে প্রতিবাদ করলে রক্ষা পান তারা।

পরবর্তীতে চিকিৎসা নিতে হাসপাতালে রওয়ানা হলে মেম্বরের নেতৃত্বে তাদেরকে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়।

এ ব্যাপারে স্থানীয় বাসিন্দা আ. খালেক মাস্টার মারপিটের বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, বিষয়টি মিমাংসার উদ্যোগ নেয়া হবে।

অপরদিকে ইউপি সদস্য ডালিম সিকদার বলেন, শালিস বৈঠকে আলতাফ তার মাকে কটাক্ষ করে বাজে মন্তব্য করলে দু’চারটি থাপ্পড় দেয়া হয়েছে মাত্র। তবে তাদের সব অভিযোগ সঠিক নয়।

শরণখোলা থানার ওসি দিলিপ কুমার সরকার বলেন, বিষয়টি তার জানা নেই। তবে ক্ষতিগ্রস্থরা আইনী সহায়তা চাইলে দেয়া হবে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
আমাদের চ্যানেল ৩৬৫ ফেসবুক লাইক পেজ