২৭শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

ইন্দোনেশিয়ায় বন্ধুকে জড়িয়ে ধরায় কিশোরীকে বেত্রাঘাত

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

ইন্দোনেশিয়ায় পরস্পরকে জড়িয়ে ধরায় দুই কিশোর-কিশোরীকে প্রকাশ্যে বেত্রাঘাত ও কারাদণ্ড দিয়েছে শরীয়াহ আইন কাউন্সিল। দেশটির আচেহ প্রদেশে কট্টর শরীয়াহ আইন জারি রয়েছে। খবর ডেইলি মেইলের।

জানা গেছে, কলেজ পড়ুয়া ওই দুই শিক্ষার্থী ক্লাস শেষে একে অপরকে জড়িয়ে ধরেছিলেন। এর জেরে প্রদেশের শরীয়াহ আইন কাউন্সিল তাদেরকে কয়েক মাসের কারাদণ্ড দেয়। দণ্ড ভোগ করার পর তাদেরকে প্রকাশ্যে বেত্রাঘাতও করা হয়।

বেত্রাঘাত করার জন্য তাদেরকে প্রাদেশিক রাজধানীর এক বড় মসজিদের সামনে স্থাপিত মঞ্চে বসানো হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন শত শত মানুষ। পরে দু’জনকে ১৭টি করে বেত্রাঘাত করা হয়।

ইন্দোনেশিয়ার কেবল আচেহ প্রদেশে শরীয়াহ আইন প্রচলিত। বেত্রাঘাতের পর বান্দা আচেহ’র ডেপুটি মেয়র বলেন, ‘আচেহ প্রদেশের বাইরের মানুষ লোকজন মনে করে শরীয়াহ আইন নিষ্ঠুর। এ ঘটনায় দেখে তাদের বোঝা উচিত এ আইন অত্যন্ত মানবিক।’

ইন্দোনেশিয়ায় বন্ধুকে জড়িয়ে ধরায় কিশোরীকে বেত্রাঘাত

বেত্রাঘাতের পর কান্নায় ভেঙে পড়তে দেখা যায় ঘটনার শিকার কিশোরীকে। সেই দৃশ্য মোবাইল ফোনে ভিডিও করেন উপস্থিত লোকজন।

দীর্ঘ বিচ্ছিন্নতাবাদী আন্দোলন মোকাবেলায় ২০০১ সালে আচেহ প্রদেশকে স্বায়ত্তশাসন দেয় ইন্দোনেশিয়া। এরপরই সেখানে শরীয়াহ আইন জারি করা হয়।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
আমাদের চ্যানেল ৩৬৫ ফেসবুক লাইক পেজ