৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

সংরক্ষিত আসনে লড়ছেন তৃতীয় লিঙ্গের প্রার্থীরাও

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৭, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লড়তে যাচ্ছেন হিজড়া বা তৃতীয় লিঙ্গের প্রার্থীরা। সংরক্ষিত নারী আসনে লড়তে প্রথম ও একমাত্র দল হিসেবে ৮ জন তৃতীয় লিঙ্গের প্রার্থীকে মনোনয়নপত্র কেনার সুযোগ দিয়েছে আওয়ামী লীগ।লেখকদের আন্তর্জাতিক সংগঠন ‘গ্লোবাল ভয়েস’র এক বিশেষ প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আসছে ১৭ ফেব্রুয়ারি জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচনের জন্য তফসিল ঘোষণা করবে নির্বাচন কমিশন। সে নির্বাচনেই নারী হিসেবে লড়ার লক্ষ্যে মনোনয়ন পত্র কিনেছেন তৃতীয় লিঙ্গের প্রার্থীরা।

প্রার্থীদের একজন ফাল্গুনি বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশের নাগরিক। অথচ দেশের সংসদের আমাদের কোন প্রতিনিধি নেই। আমাদের সমস্যা বোঝা এবং তুলে ধরার মতো কেউ নেই। তাই নির্বাচনে লড়ছি।’

বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার মধ্যে প্রায় পাঁচ লাখ তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ রয়েছে বলে অনুমান করা হয়। সমাজে তাদেরকে গ্রহণ করতে আইনি বাধ্যবাধকতা তৈরি করা হলেও বাস্তবে বৈষম্যের শিকার হন তারা। সহিংসতার শিকার হলেও বিচার পান না বেশিরভাগ ক্ষেত্রে। চাকরি দেয়া হয় না বলে ভিক্ষাবৃত্তি বা গান গেয়ে জীবন নির্বাহ করেন তারা।

সংরক্ষিত আসনে লড়ছেন তৃতীয় লিঙ্গের প্রার্থীরাও

বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের মোট ৩৫০টি আসনের মধ্যে ৫০ সংরক্ষিত। এসব আসনে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষরা প্রার্থী হতে পারবেন না এমন কিছু লেখা নেই।

আরও পড়ুনঃ সিস্টারদের যৌনদাসীর মতো ব্যবহার করছে যাজকরা: পোপ

নির্বাচন কমিশনের সচিব হেলালুদ্দিন বলেন, যেকোন যোগ্য নারী সংরক্ষিত আসনের জন্য প্রার্থী হতে পারবে। হিজড়ারা নিজেদেরকে নারী হিসেবে পরিচয় দিলে তারাও অংশ নিতে পারবে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
আমাদের চ্যানেল ৩৬৫ ফেসবুক লাইক পেজ