২রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

কলকাতায় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব শুরু

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

শুক্রবার কলকাতায় শুরু হলো বাংলাদেশের চললচ্চিত্র নিয়ে চার দিনের ‘বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব’। কলকাতার সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নন্দন-২ মিলনায়তনে দ্বিতীয়বারের মতো শুরু হলো এ আয়োজন। বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ এই উৎসব উদ্বোধন করেছেন। উদ্বোধনী মঞ্চে বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের বিখ্যাত সব লোকেরা উপস্থিত ছিলেন।

উৎসব শুরুর দিনে বাংলাদেশ ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গে তৈরি বাংলা ছবির বাজারকে আরও বিস্তৃত করা এবং বাংলা ছবিকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান জানান উপস্থিত বক্তরা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথি হয়ে হাজির হয়েছিলেন পশ্চিমবঙ্গের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব, আইসিসিআর দিল্লির মহাপরিচালক রিভা গাঙ্গুলি দাস। বিশেষ অতিথি হিসেবে কলকাতার প্রখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা গৌতম ঘোষ উপস্থিত হন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কলকাতায় নিযুক্ত বাংলাদেশের উপহাইকমিশনার তৌফিক হাসান।

আরও উপস্থিত ছিলেন দুই বাংলার জনপ্রিয় তারকা জয়া আহসান এবং ফেরদৌস। উদ্বোধনী মঞ্চে মক্তব্য রাখেন এ দুই তারকা। বক্তব্যে জয়া আহসান বলেন, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যে যে সংস্কৃতির সেতুন বন্ধন তৈরি হয়েছে সেটা অনেক গুরুত্ব রাখে। এ বন্ধন কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে আটকানো যাবে না’। চিত্রনায়ক ফেরদৌসও জানান একই কথা। চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তিনি দুইদেশের মানুষের বিভেদ দূর করার আহবান জানান।

দ্বিতীয় বারের মতো আয়োজিত এ উৎসবে বাংলাদেশের ২৩টি ছবির প্রদর্শনী হচ্ছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রামাণ্য চলচ্চিত্র ‘আমাদের বঙ্গবন্ধু’ দেখানো হয়। কলকাতার নন্দনের দুটি প্রেক্ষাগৃহ এবং নজরুল তীর্থর একটি প্রেক্ষাগৃহে চারদিন চলবে এ উৎসব। যাতে প্রদর্শিত হবে ‘পুত্র’, ‘আমাদের বঙ্গবন্ধু’ (প্রামাণ্য চলচ্চিত্র), ‘পোস্টমাস্টার ৭১’, ‘স্বপ্নজাল’, ‘দহন’, ‘রাজনীতি’, ‘হেডমাস্টার’, ‘জীবন ঢুলি’, ‘নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ’, ‘ঘেটুপুত্র কমলা’, ‘নুর মিয়া ও তার বিউটি ড্রাইভার’, ‘ গহীন বালুচর’, ‘আলফা’, ‘জান্নাত’, ‘জন্মভূমি’, ‘রাজপুত্র’, ‘পাঠশালা’, ‘সনাতন গল্প’, ‘মহুয়া সুন্দরী’, ‘জাগে প্রাণ পতাকায় জাতীয় সংগীতে’, ‘খাঁচা’, ‘গেরিলা’ ও ‘চিত্রা নদীর পাড়ে’ ছবিগুলো।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
আমাদের চ্যানেল ৩৬৫ ফেসবুক লাইক পেজ