৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

ভোলায় মুক্তিযোদ্ধাকে কটূক্তি করলেন হাসপাতালের চিকিৎসক

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

ভোলার বোরহানউদ্দিনে শাহে আব্দুল করিম নামে এক বীর মুক্তিযোদ্ধাকে হাসপাতালে কটূক্তি ও প্রাইভেট চেম্বার থেকে চিকিৎসা না দিয়ে বের করে দেয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও ওই চিকিৎসেকর শাস্তি দাবি করেছেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ড ও সন্তান কমান্ডরা। রোববার সকালে ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার শহীদ মিনার চত্বরে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা মন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
এ সময় বক্তব্য রাখেন- বোরহানউদ্দিন উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডের কমান্ডার আহমদ উল্লাহ, গঙ্গাপুর ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডার শাহে আলমসহ প্রমূখ।

এ সময় বক্তারা বলেন- মুক্তিযোদ্ধারা অনেক কষ্ট করে এদেশ স্বাধীন করেছেন। আর এখন একজন চিকিৎসক বলেন মুক্তিযোদ্ধারা দেশকে নষ্ট করেছে। এসব কথা তো শুধু স্বাধীনতাবিরোধীরা বলতে পারে। এ সময় তারা ডা. মোবাশ্বীর হাসান লিমনের দৃষ্টান্তরমূলক শাস্তি দাবি করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- বোরহানউদ্দিন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সাধারণ সম্পাদক দীন ইসলাম রুবেল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. হেলাল উদ্দিন, সদস্য বেলায়েত হোসেনসহ প্রমূখ।

গত সাত দিন আগে গঙ্গাপুর ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডার শাহে আলম জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে গেলে বোরহানউদ্দিন উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডা. মোবাশ্বীর হাসান লিমন ওই মুক্তিযোদ্ধার পরিচয় জেনে তাকে বলেন মুক্তিযোদ্ধারা দেশটাকে ধ্বংস করেছে। এর প্রতিবাদ করায় তাকে কটূক্তি করে চলে যেতে বলেন ওই চিকিৎসক।

এরপর গত ২১ ফেব্রুয়ারি সকালে ওই মুক্তিযোদ্ধা মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত হয়ে হাসপাতালে গেলে সেখানে চিকিৎসক না থাকায় প্রাইভেট চেম্বারে গেলে সেখানেও ওই চিকিৎসক তাকে চিকিৎসা না দিয়ে অপমান করে চেম্বার থেকে বের করে দেন।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
আমাদের চ্যানেল ৩৬৫ ফেসবুক লাইক পেজ