২৭শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

তড়িঘড়ি করে বন্ধ করে দেয়া হলো ভারতের কয়েকটি বিমান বন্দর

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

দেশের পশ্চিম সীমান্তে বেশ কিছু বিমানবন্দরে যাত্রীবাহী বিমানের উড়ান বন্ধ করেছে ভারত৷ জম্মু, শ্রীনগর, লে এবং অমৃতসর, দেরাদুন, পঠানকোট, ধর্মশালা বিমানবন্দর বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে৷ অন্যদিকে, পাকিস্তানও লাহোর মুলতান, ফয়সলাবাদ, শিয়ালকোট অবং ইসলামাবাদের বিমানবন্দর বন্ধ করেছে৷

কিন্তু কী কারণে বিমানবন্দর বন্ধ করা হয়েছে? প্রাক্তন সেনা কর্তারা কারণ ব্যাখ্যা করেছেন:-

১। যুদ্ধের সময় দেশের আকাশ পথ বা এয়ার স্পেস যতটা সম্ভব খালি রাখা হয়৷

২। যাত্রীবাহি বিমানগুলির সঙ্গে যেন শত্রু দেশের যুদ্ধবিমান মিশে না যায় তা দেখার সুবিধা হয়৷ এক্ষেত্রে পাক যুদ্ধবিমানকে সহজেই চিহ্নিত করা যাবে৷

৩। ভূমি থেকে ক্ষেপণাস্ত্র বা বিমানধ্বংসকারী অস্ত্র ব্যবহার করে পাক যুদ্ধবিমান নামাতে আকাশ পথ পরিস্কার রাখা প্রয়োজন৷

৪। যদি একটি বিমানও আকাশপথে দেখা যায়, তবে বুঝতে হবেতা পাক বিমান৷ সেই বিমান ধ্বংস করতে প্রস্তুত হবে বিমানবাহিনী৷

৫। ওই বিমানক্ষেত্রে ভারতীয় বিমানবাহিনীর বিমান মজুত থাকবে৷

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
আমাদের চ্যানেল ৩৬৫ ফেসবুক লাইক পেজ