৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

মোড়েলগঞ্জে নৌকা পেলেন অ্যাড.বাচ্চু, মনোনয়ন বঞ্চিতরাও থাকছেন মাঠে

আপডেট: মার্চ ২, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

এম. পলাশ শরীফ, মোড়েলগঞ্জঃ আসছে উপজেলা পরিষদ নিরর্বাচনে বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপাজেলা পরিষদে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের দলীয় নমিনেশন পেয়েছেন বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান বাগেরহাট জেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি জেলা আইনজীবি সমিতির একাধিকবার নির্বাচিত সভাপতি অ্যাড. শাহ্-ই-আলম বাচ্চু। নমিনেশন বঞ্চিত মিজানুর রহমান বাবুল মাঠে থাকার ঘোষণা দিয়েছেন। শুক্রবার রাতে দলীয় প্রার্থী ঘোষণার পরে শনিবার বেলা ১১টায় প্রার্থী হিসেবে মাঠে থাকার ঘোষণা দেন বাবুল।

রামচন্দ্রপুর ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমানে চেয়ারম্যান বাবুল গেল ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার বিষয়ে তিনি এ প্রতিনিধিকে বলেন, ‘ইউপি নির্বাচনে আমাকে নৌকা দেওয়া হয়েছিল। আমি দলীয় কোন পোষ্ট পজিশনে নেই। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় নমিনেশন চেয়েছি, পাইনি। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে টাকা জমা দেব। এলাকার মানুষ পরিবর্তন চায়। আমি মাঠে থাকবো’।

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দলীয় নমিনেশন দাবি করেছিলেন অ্যাড. শাহ্-ই-আলম বাচ্চু, মো. লিয়াকত আলী খান, এইচএম মিজনুর রহমান জনি ও মিজানুর রহমান বাবুল। উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধীত সভায় এ চার জনের নাম কেন্দ্রীয় বাছাই বোর্ডের কাছে পাঠালে শুক্রবার রাতে বোর্ড চুড়ান্ত তালিকায় শাহ-ই-আলম বাচ্চুর নাম প্রকাশ করেন।

এ বিষয়ে আ.লীগের মনোনীত প্রার্থী এ্যাড. শাহ-ই আলম বাচ্চু বলেন, গেল নির্বাচনে দল আমাকে মনোনয় দিয়েছিলেন নির্বাচিত হয়ে মাঠ পর্যায়ে সাধারণ মানুষের পাশে থেকে কাজ করেছি। দল থেকে কি পেলাম কখনও হিসাব করেনি। কেন্দ্রীয় নেতারা মনোনয়ন বোর্ডে আমাকে পুনরায় চুড়ান্ত করায় আগামী দিনগুলোতেও সাধারণ মানুষের পাশে থেকে সার্বক্ষনিক তাদের কাজ করার জন্য নিজেকে নিয়জিত রাখবো। আমি বিশ্বাস করি জনগনের কল্যানে আবারো নৌকা প্রতিকে ভোট দিয়ে বিজয় করবে।

এদিকে ভাইস চেয়ারম্যান পদেও আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের একাধীক প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে। উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মোজাম্মেল হক মোজাম ও সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এনামুল হক রিপন মাঠে কাজ করছেন।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আজমীন নাহার ও বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান ফাহিমা ছাবুল প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবেন বলে জানা গেছে।

নির্বাচন অফিস সূত্রে জানাগেছে, এবারে এ উপজেলায় নির্বাচনে মোট ভোটার রয়েছে ২ লাখ ১৫ হাজার ৬শ ৬৬জন। ৪ মার্চ মনোনয়নপত্র জমা, ৬মার্চ মনোনয়নপত্র বাচাই, ১৩ মার্চ মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার এবং ৩১ মার্চ ৪র্থ ধাপে এ উপজেলায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
আমাদের চ্যানেল ৩৬৫ ফেসবুক লাইক পেজ