২১শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

বখাটের উৎপাতে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যার ঘটনায় প্রধান আসামী গ্রেফতার

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

পিরোজপুর প্রতিনিধিঃপিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় বখাটের উৎপাত সইতে না পেরে স্কুলছাত্রী আত্মহত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের করেছেন মেয়েটির বাবা । শনিবার রাতে এ ঘটনায় স্থানীয় মঞ্জু খানের বখাটে ছেলে আরাফ হাসান তামিম খান (১৮) কে প্রধান আসামীসহ ৫ জনকে চিহ্নিত এবং অপর ৪/৫ জনকে অজ্ঞাত দেখিয়ে আত্মহত্যার প্ররোচনা ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ভান্ডারিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন মেয়েটির বাবা মো. রুহুল আমিন মুন্সী। মামলার অন্য আসামীরা হচ্ছে আঃ মালেক হাওলাদার এর ছেলে রাইয়ান, ইরিন (পিতা-অজ্ঞাত), আলম জোমাদ্দারের ছেলে ওয়ালিদ, মো. রফিকুল ইসলামের ছেলে সাজিদ। পিরোজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মঠবাড়ীয়া সার্কেল) মো. হাসান মোস্তফা স্বপনের নেতৃত্বে পিরোজপুর ডিবি পুলিশ ও ভান্ডারিয়া থানা পুলিশ শনিবার সন্ধ্যায় যৌথ অভিযান চালিয়ে স্থানীয় জমাদ্দার বাড়ী থেকে (বখাটের বাড়ী থেকে) এ মামলা প্রধান আসামী তামিম খানকে গ্রেফতার করেছে এবং ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আজ রবিবার (১ সেপ্টম্বর) তাকে বিচারিক আদালতে তোলা হলে পিরোজপুর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (১ম আদালত) মো.মেহেদি হাসান ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।
উল্লেখ্য, ভান্ডারিয়া উপজেলার বখাটে তামিম খান স্কুল ছাত্রী রূপাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল রূপা তা প্রত্যাখ্যান করায় এবং এর প্রতিবাদ করলে ওই বখাটে একটি নগ্ন ছবির সঙ্গে রূপার ছবি জুড়ে দিয়ে সামাজিক সাইটে এবং ম্যাসেঞ্জারের ছড়িয়ে দেয়ায় রুপা ও তার পরিবার চরম বিব্রতকর অবস্থার মধ্যে পড়েন। শুক্রবার দিবাগত রাতে মেয়েটি ক্ষোভে এবং লজ্জায় ঘরে থাকা ঘুমের ওষুধসহ বিভিন্ন ধরনের ওষুধ সেবন করে আত্মহত্যা করে। সে স্থানীয় বন্দর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীতে লেখা পড়া করত।
এদিকে পিরোজপুরে ময়না তদন্ত শেষে শনিবার রাত নয়টায় স্থানীয় নিজ ভান্ডারিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে রুকাইয়া রুপার জানাজা নামাজ অনুষ্ঠিত হয় । রাতেই তাদের পারিবারিক কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন করা হয়।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
আমাদের চ্যানেল ৩৬৫ ফেসবুক লাইক পেজ