২৮শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

স্বরুপকাঠিতে বিতর্কিত ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে শুভেচ্ছা জ্ঞাপন, নেতাকর্মীদের ক্ষোভ

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

পিরোজপুরের স্বরুপকাঠি উপজেলা ছাত্রলীগ থেকে বহিস্কৃত সাংগঠিক সম্পাদক অনুজিত শাহাকে নিয়ে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে স্ট্যাটাস নিয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। এই নিয়ে রাজনৈতিক মহলে আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে।

সম্প্রতি উপজেলা ছাত্রলীগের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানা যায়, গত ২৪ আগস্ট বরিশালে মদসহ স্বরুপকাঠি উপজেলা ছাত্রলীগ থেকে সাংগঠিক সম্পাদক অনুজিত শাহা আটক হওয়ায় সাময়িক বহিস্কার ও কেন স্থায়ী বহিস্কার করা হবে না তা ৭ দিনের মধ্যে কারণ দর্শাণোর নির্দেশ দেয়া হয়েছিলো। কিন্তু তার পরিপেক্ষিতে পরবর্তিতে কার্যকর ভূমিকা না নেয়ায় নানা গুঞ্জন সৃষ্টি হয়েছে।

বৃহস্পতিবার স্বরুপকাঠি উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রনি দত্ত জয় ও সাধারণ সম্পাদক ইমরান আহমেদ ইমু তাদের ফেসবুক আইডি থেকে মদ নিয়ে বরিশালে আটক হওয়া বহিস্কৃত সেই সাংগঠনিক সম্পাদক অনুজিত শাহার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা না নিয়ে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন। এতে করে ক্ষোভে ফেটে পড়েন অন্যান্য নেতাকর্মীরা।

এব্যাপরে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রনি দত্ত জয় বলেন, আমরাতো পোস্টে কোন পদপদবি উল্লেখ করিনি। তবে পরে ভূল স্বিকার করেন এই নেতা। তিনি বলেন, তারা জেল থেকে বেরিয়ে এখনো কোন কারন দর্শায়নি।

সাধারণ সম্পাদক ইমরান আহমেদ ইমুকে ফোন দিলে তিনি বলেন, তারা এখনো কারণ দর্শায়নি আমরা কি করবো। আর জন্মদিনে পোষ্ট দিতেই পারি। পরে তিনি কৌশলে বিষয়টি এড়িয়ে যান।

একটি সূত্র বলছে, অনুজিত শাহা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রনি দত্ত জয় ও সাধারণ সম্পাদক ইমরান আহমেদ ইমুর শেল্টারেই সকল অপকর্ম করে যাচ্ছে। এমনকি মাদক ক্রয় বিক্রিতেও প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে সহযোগিতা করে আসছে উপজেলা ছাত্রলীগের দুই শীর্ষ নেতা।

উল্লেখ্য, গত শনিবার (২৪ আগস্ট ) ভোরে পিরোজপুরের স্বরুপকাঠি ছাত্রলীগের ছয় নেতাকর্মী মদসহ বরিশাল পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছে।তাদের মেট্রোপলিটন বিমানবন্দর থানাধীন মাদবপাশা গ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করে বমিানবন্দর থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারদের মধ্যে স্বরুপকাঠি উপজেলার শহীদ স্মৃতি ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি প্রশন্ত দাস (২২), উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অনুজিৎ সাহা (২৩) এবং স্বরুপকাঠি পৌর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক উজ্জল সাহা (২৩)। বাকি তিনজন সুজন দাস (২০) দেবদাস (৩৩) এবং অরুন শীল (২০) ছাত্রলীগের কর্মী। তাদের সকলের বাড়ি স্বরুপকাঠি উপজেলা ও পৌরসভায় বিভিন্ন এলাকায়। এই ঘটনায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের একটি মামলায় তাদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে পরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
আমাদের চ্যানেল ৩৬৫ ফেসবুক লাইক পেজ