২৫শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

বরগুনায় সাবেক এমপি পুত্রের কাণ্ড, ভাবীকে পিটিয়ে আহত

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বরগুনা-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য গোলাম সরওয়ার হিরুর ছোট ছেলে রনির বিরুদ্ধে ভাবীকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। ভূক্তভোগী ওই নারীর নাম রোকসানা বেবি। তিনি রনির বড় ভাই গোলাম মোর্শেদ রানার স্ত্রী।

জানা গেছে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে পাথরঘাটা উপজেলার কালমেঘা ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। আহত রোকসানা বেবিকে পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

হিরুর বড় ছেলে রানা বলেন, মা মারা যাওয়ার পর তার বাবা ২য় বিয়ে করেন এবং পাথরঘাটা পৌরশহরে এসে বসবাস শুরু করেন। তিনি আগের সংসারের দুই ছেলে ও এক মেয়ের কোনো খোঁজ না রেখে বরং জমিজমা নিজে ভোগদখল করেন। তাদের পরিবারের যৌথ মালিকানার জমি তার চাচা গোলাম সত্তারের বড় ছেলে প্রিন্স তাদের অংশটি রানাকে ভোগদখলের জন্য দিয়ে যান। কিন্তু রানার অজান্তে সে জমি তার বাবা গোলাম সরোয়ার হিরু অন্যের কাছে মর্ডগেজে রেখে দেন। এ নিয়ে বিরোধ হলে বৃহষ্পতিবার বিকেলে তার বাবা ও তার ছোট ভাই রনি পুলিশ নিয়ে জমি মর্ডগেজ দাতাকে দিয়ে চাষ করতে আসেন।

এ সময় রানা ও তার স্ত্রী বাঁধা দিলে তার বাবা অকথ্য গালাগাল করতে থাকেন এবং ছোট ভাইকে দিয়ে আমার স্ত্রী রোকসানা বেবিকে মারধর করে মাথায় আঘাত করে।

এ ব্যাপারে সাবেক সংসদ সদস্য গোলাম সরওয়ার হিরু ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ‘বড় ছেলের স্ত্রীর সঙ্গে তর্কবিতর্ক হয়েছে। তবে মারধরের মত কোন ঘটনা ঘটেনি।’

এ ব্যাপারে পাথরঘাটা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ শাহাবুদ্দিন বলেন, ‘খবর পেয়ে পুলিশ আহত বেবিকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করার পরামর্শ দিয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় লিখিত অভিযোগ হয়েছে। তদন্ত করে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
আমাদের চ্যানেল ৩৬৫ ফেসবুক লাইক পেজ