২১শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

কিশোর গ্যাং ধরার মিশন শুরু, আটক শতাধিক

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বরগুনায় প্রকাশ্যে রিফাত হত্যাকাণ্ডের পর থেকেই সারাদেশে কিশোর গ্যাংয়ের সন্ধান খুঁজছে র‌্যাব ও গোয়েন্দা পুলিশ। কিশোর গ্যাং এর অধিকাংশ সদস্যই স্কুলপড়ুয়া কিশোর। হত্যা, খুনসহ নৃশংস বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তারা ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচনায় মশগুল থাকে। সেই সঙ্গে দল বেঁধে চাঁদাবাজি, ছিনতাই, নিরীহদের মারধর করে বেড়ায়। তবে এবার এই কিশোর গ্যাংয়ের নৈরাজ্য এবং খুন-খারাবি ঠেকাতে এবার মাঠে নেমেছে র‌্যাব এবং গোয়েন্দা পুলিশ।

রাজধানীসহ সারাদেশে বিভিন্ন নামে একাধিক কিশোর গ্যাং দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। কিশোর গ্যাং এর সদস্যদের নিজস্ব কোন্দলের জেরে গ্রুপগুলো নিজেদের মধ্যে যেমন দ্বন্দ্বে লিপ্ত, তেমনি তাদের ভয়ে এলাকাবাসী থাকেন ততস্ত্র।

এদিকে রাজধানীর হাতিরঝিলে কিশোর গ্যাংয়ের সঙ্গে জড়িত থাকার সন্দেহে শতাধিক কিশোর–তরুণকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার বিকেল সাড়ে চারটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত হাতিরঝিল থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পুলিশের হাতিরঝিল জোনের অতিরিক্ত উপকমিশনার হাফিজ আল ফারুক জানান, জাতীয় জরুরি সেবার হটলাইন নম্বর ৯৯৯ এ ফোন করে হাতিরঝিল এলাকায় কিশোর গ্যাংয়ের দৌরাত্ম্য বেড়েছে বলে বিভিন্ন অভিযোগ আসে। এ ছাড়া এখানে যারা বেড়াতে আসেন তাদের কাছ থেকেও বিভিন্ন সময়ে একই অভিযোগ এসেছে।

এ ছাড়া এই এলাকায় বসবাসরত ও যাতায়াতকারী ছাত্রী এবং তাদের অভিভাবকদের পক্ষ থেকেও কিশোর গ্যাংয়ের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ এসেছে। পাশাপাশি সাম্প্রতিক সময় বিভিন্ন স্থানে কিশোর গ্যাংয়ের বিষয়টি ওঠে আসায় এই অভিযান চালানো হয়েছে বলে তিনি জানান।

হাফিজ আল ফারুক জানান, তাদের ছয়টি দল আলাদা আলাদাভাবে এই অভিযানে অংশ নেয়। যাদের যে দলে আটক করা হয়েছে তাদের সেভাবে আলাদা আলাদা করে রাখা হয়েছে। এদের অপরাধের মাত্রা যাচাই করা হচ্ছে।

আটককৃতদের মধ্যে কারও বিরুদ্ধে আগে অপরাধের অভিযোগ ছিল কিনা তাও দেখা হচ্ছে। অপরাধের মাত্রা বিবেচনা করে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
আমাদের চ্যানেল ৩৬৫ ফেসবুক লাইক পেজ