১৬ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত আদমজী ইপিজেডের ৬ ব্যবসায়ীঃ আতঙ্কিত বিনিয়োগকারীরা

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার::আদমজী ইপিাজেডে ব্যবসা নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে কয়েক দফা মহড়া শেষে ব্যবসায়ীদের উপর হামলা চালিয়েছে একদল সন্ত্রাসী। এতে ৬ জন ব্যবসায়ী আহত হয়েছে। গতকাল শনিবার দুপুর ১ টায় এ ঘটনাটি ঘটে সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজী ইপিজেডের পাশে কদমতলী পুল এলাকায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ৩ জনকে আটক করেছে। ব্যবসায়ীদের উপর সন্ত্রাসীদের হামলার ঘটনায় আদমজী ইপিজেডের সাধারণ ঠিকদার ও ইপিজেডের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মালিকদের (বিনিয়োগকারী) মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ আজিজুল হক জানায়, ব্যবসায়ীদেরকে মারধরের খবর পেরে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে ৩ জনকে আটক করেছি। বাকীরা পালিয়ে গেছে। এ ঘটনায় মামলা নেওয়া হচ্ছে। বাকী সন্ত্রাসীদের ধরার চেষ্টা করছি।

ব্যবসায়ী মাসুদুর রহমান সাংবাদিকদের জানায়, আদমজী ইপিজেডে ঠিকাদারী ব্যবসা নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে গত কয়েকদিন যাবত মহড়া দিয়ে আসছিল একটি সন্ত্রাসী চক্র। শনিবার সকাল থেকেও সেলিম মজুমদারের নেতৃত্বে স্নপন মন্ডল, শিপন, আপেল, আশিক, রনি, কশাই বাবু, রাসেলসহ ২০ থেকে ২৫ জন সন্ত্রাসী আদমজী ইপিজেডের কয়েকটি ফ্যক্টরীর সামনে মহড়া দেয়। সেলিম মজুমদারকে নাসিক সাবেক কাউন্সিলর সিরাজ মন্ডল ও নাসিকের বর্তমান কাউন্সিলর আলা হোসেন শেল্টার দিয়ে আসছিল বলে জানায় সাধারণ ব্যবসায়ীরা। ইপিজেড এলাকায় মহড়া শেষে তারা আদমজী ইপিজেডের অদূরে কদমতলীপুল এলাকায় অবস্থান নেয়। একই সময় ঐ এলাকা দিয়ে আদমজী ইপিজেডের ব্যবসায়ী মাসুদুর রহমান, ইফতেখার আলম রাজু, সজীব, সোহাগ, জামাল ও ফয়সাল আদমজী ইপিজেডে যাচ্ছিল খাবার নিয়ে। এসময় সন্ত্রাসীরা তাদের গতিরোধ করে তাদের কাছ থেকে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। ঐ ব্যবসায়ীরা তাদের দাবিকৃত অর্থ দিতে অপরাগতা প্রকাশ করলে সন্ত্রাসীরা তাদের উপর হামলে পড়ে। সন্ত্রাসীদের উপর্যুপরী হামলায় ব্যবসায়ীরা মারাত্মক আহত হয়। খবর পেয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। তবে এসময় পুলিশ শিপন, আপেল ও আশিক নামে ৩ জনকে আটক করতে সক্ষম হয়। পুলিশ আহত ঠিকাদারদের উদ্ধার করে স্থানীয় ক্লিনিকে ভর্তি করে।

এলাকাবাসী জানায়, প্রধানমন্ত্রী ও নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের ছবি বিকৃত করে ফেসবুকে আপলোড করায় ২০১৫ ইং সালের ৩ আগষ্ট সেলিম মজুমদারের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা হয়েছিল। তাছাড়া তার বিরুদ্ধে প্রায় ১১/১২ টি মামলা রয়েছে। আদমজী ইপিজেডের ব্যবসা নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেয়ার জন্য নাসিকের সাবেক কাউন্সিলর সিরাজ মন্ডল ও নাসিকের বর্তমান কাউন্সিলর আলা হোসেন সেলিম মজুমদারকে শেল্টার দিয়ে আদমজী ইপিজেডে মহড়া দেওয়াচ্ছিল। এতে করে আদমজী ইপিজেডের বিনিয়োগকারীদের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যবসায়ী জানায়, বর্তমানে এমনিতেই গার্মেন্ট ব্যবসায়ীরা নানা প্রতিক‚লতার সন্মুখীন হচ্ছেন। এরমধ্যে সন্ত্রাসীদের মহড়া ও ঠিকাদারদের উপর হামলার ঘটনায় গার্মেন্ট ব্যবসায় নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। এ ব্যপারে তিনি প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

তবে এ বিষয়ে কথা হলে সেলিম মজুমদার মজুমদার বলেন, সব ব্যবসা ওরা একাই করে আমাকে বলছে একটা ব্যবসা দিবে, কিন্তু দেয় না। তাইলে বুঝেন তাদের কি করা উচিত।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
আমাদের চ্যানেল ৩৬৫ ফেসবুক লাইক পেজ