২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

বরিশাল লঞ্চঘাটের দালাল লেদুর অনৈতিক বাণিজ্য জমজমাট

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

ঢাকা-বরিশাল নৌ রুটের লঞ্চের কেবিনের টিকিট নিয়ে দক্ষিণাঞ্চলের যাত্রীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। কেবিনের টিকিট দালাল ও অসাধু লঞ্চ কর্মচারীদের হাতে চলে গেছে। লঞ্চ মালিকরা ইচ্ছেমতো আত্মীয়-স্বজন, শুভাকাংখী ও প্রভাবশালী ব্যক্তিদের কেবিনের টিকিট দিলেও সাধারন মানুষ জিম্মি এসব টিকিট কালোবাজালীর হাতে।

কেবিন ব্লাকার বা লঞ্চ ঘাটের দালাল হিসেবেই পরিচিত লেদু ওরফে দালাল লেদু। বরিশাল সদর উপজেলার চরকাউয়ার এই দালাল লেদু দীর্ঘদিন যাবত কেবিন সিন্ডিকেটর সদস্য হলেও বছর খানেক ধরে শুরু করেছে মাদক বাণিজ্য ও কর্ল গার্ল সাপ্লায়ার।

সরজমিন খোজ খবর নিয়ে জানা যায়, ঢাকা বরিশাল নৌ রুটের লঞ্চে যাত্রীদের কেবিন পেতে অনেকেই ছুটে আসতো লেদুর কাছে। সেই সুযোগে যাত্রীদের জিম্মি করে টাকা হাতিয়ে নিতো এই দালাল।

বর্তমানে লেদু তার ভোল পাল্টে নয়া বাণিজ্য শুরু করেছে। তিনি এখন লঞ্চে মাদক বাণিজ্য ও কর্ল গার্ল সাপ্লায়ারের কাজ করছে বলে জানা গেছে। তিনি এখন একসাথে লঞ্চের কেবিন, মাদক ও কর্ল গার্ল সাপ্লাই দিয়ে থাকেন। এবং তিনি আবার পুলিশ ও আনসার দিয়ে গ্রাহকদের বেকায়দায় ফেলে হাতিয়ে নিচ্ছে মোটা অঙ্কের টাকা। বর্তমানে তার ব্যবসা জমজমাট হয়ে উঠেছে। এই দালাল লেদু দিন দিন বেপরোয়া উঠেছে বলে অভিযোগ করেছে একাধিক ভুক্তভোগী।

এব্যাপারে দালাল লেদুকে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি তা রিসিভ করেননি।

এ বিষয়ে নৌ থানার ইনচার্জ আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। কেউ সুনির্দিষ্ট অভিযোগ দিলে তাকে আইনের আওতায় এনে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
আমাদের চ্যানেল ৩৬৫ ফেসবুক লাইক পেজ